Breaking news

ফাঁকা বাসা বাড়িতে চোর চক্রের সুযোগ সন্ধানী আট সদস্যকে গ্রেফতার করলো ডিবি
ফাঁকা বাসা বাড়িতে চোর চক্রের সুযোগ সন্ধানী আট সদস্যকে গ্রেফতার করলো ডিবি

ফাঁকা বাসা বাড়িতে চোর চক্রের সুযোগ সন্ধানী আট সদস্যকে গ্রেফতার করলো ডিবি

মো: মোস্তাফিজুর রহমান খান : দক্ষিন এশিয়ার রাষ্ট্র বাংলাদেশের রাজধানী ও বৃহত্তম শহর ঢাকা । প্রায় দুই কোটি মানুষের বসবাস ঢাকা শহরে। সারা দেশ থেকে প্রচুর মানুষ ঢাকায় আসেন জীবন ও জীবিকার সন্ধানে। ঢাকার রাস্তা-ঘাট,অলি-গোলি সব সময় ব্যস্ত সময় কাটালেও ব্যত্যয় ঘটে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় দুই ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদুল-ফিতর এবং ঈদুল-অযহার সময়। প্রাণোচ্ছল, কোলাহল পূর্ন ব্যস্ততম ঢাকা একরকমের নিরবতার চাদরে ঢাকা পরে যায়। এসময় পরিবারের সকল আত্বীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগ করতে নাড়ীর টানে বাড়ী (গ্রামে) চলে যায় অনেকেই। সাধারনতো এসময়ে রাজধানীর অলি-গোলী ফাঁকা হয়ে যায়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে ফাঁকা বাসা বাড়িতে চুরি করারমত ঘৃনিত অপরাধে লিপ্ত হয় কিছু অপরাধী।  সাধারনতো এসময়টা কাজে লাগিয়ে রাজধানীতে ফাঁকা বাসা বাড়িতে চুরি করারমত ঘৃনিত অপরাধ করে তারা। 

রাজধানীর ফাঁকা বাসা বাড়িতে চোর চক্রের সুযোগ সন্ধানী আট সদস্যকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) এর গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। গ্রেফতারকৃতরা হলো-মোঃ রাসেল, মোঃ শিপন মৃধা, মোঃ আল আমিন, মোঃ মতিউর রহমান ওরফে মেহেদী হাসান, মোঃ নাসির শেখ, মোঃ দ্বীন ইসলাম, মোঃ আমির হোসেন ওরফে বেপারী ও মোঃ ইলিয়াস মিয়া।

গ্রেফতার অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগের সংঘবদ্ধ অপরাধ ও গাড়ী চুরি প্রতিরোধ টিম এর সহকারী পুলিশ কমিশনার মধুসূদন দাস bbn24.com কে জানান, ১৭ জুলাই, ২০২১ ডিএমপির কোতয়ালী, হাজারীবাগ, কামরাঙ্গীরচর, ঢাকার কেরাণীগঞ্জ এর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গোয়েন্দা পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, গ্রেফতারকৃতরা মূলত পবিত্র ঈদ উপলক্ষে যাঁরা রাজধানী হতে গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে যান তাঁদের খালি বাসা বাড়ি প্রথমে রেকি করে। এরপর সুবিধামত সময়ে গ্রিলকেটে বা অন্য কোন উপায়ে উক্ত বাসায় চুরি করে থাকে। এরা বাসাবাড়ির মালামালের পাশাপাশি গ্যারেজে থাকা মোটর সাইকেলও চুরি করে থাকে। এদের বিরুদ্ধে ডিএমপির একাধিক থানাসহ ঢাকার কেরাণীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের বন্দর, মুন্সিগঞ্জের লৌহজং, শরীয়তপুরের জার্জিয়া, পিরোজপুরের ইন্দুরকানি থানায় চুরি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, প্রতারণা, মাদক, ধর্ষণ এমনকি খুনেরও মামলা রয়েছে।

গ্রেফতারকৃতদের ডিএমপির সূত্রাপুর ও ধানমন্ডি থানায় রুজুকৃত মামলায় বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


Published: 2021-07-18 01:53 pm   |   View: 1198   |  
Copyright © 2017 , Design & Developed By maa-it.com



up-arrow