Breaking news

ডেঙ্গুর চিকিৎসা ৬ ডেডিকেটেড হাসপাতালে
ডেঙ্গুর চিকিৎসা ৬ ডেডিকেটেড হাসপাতালে

ডেঙ্গুর চিকিৎসা ৬ ডেডিকেটেড হাসপাতালে

রাজধানীর ৬টি হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেডে হাসপাতাল করা হবে বলে জানিয়ৈছেন স্বাস্থ্য অধীদপ্তরের কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) পরিচালক ডা. নাজমুল ইসলাম।

বুধবার (২৮ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ডেঙ্গু বিরোধী চিরুনি অভিযানে অংশ নিয়ে তিনি একথা জানান।

এর আগে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাজধানীর মিরপুরের রূপনগর এলাকা থেকে ডেঙ্গু বিরোধী চিরুনি অভিযানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। চিরুনি অভিযানের উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা।
 
তিনি জানান, নির্মাণাধীন ভবনে দীর্ঘদিন ধরে জমে থাকা পানি এবং আবর্জনা মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে। এর থেকেই তৈরি হচ্ছে এডিসের লার্ভা। যা মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকির কারণ। সে লক্ষ্যেই ৭ আগস্ট পর্যন্ত এই কার্যক্রম পরিচালিত হবে।
অভিযানের প্রথম দিন মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১০টি অঞ্চলের ৫৪টি ওয়ার্ডে ছেটানো হয় লার্ভিসাইড। অভিযানে যেসব ভবনে এডিসের লার্ভা পাওয়া যাচ্ছে, সেই ভবনের মালিককে জরিমানা করছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
 
এ সময় ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা বলেন, আমরা বেশ কয়েকটি ভবনে জমানো পানি পেয়েছি। আমরা মালিককে খুঁজছি, পেলে জরিমানা করা হবে আর না পেলে মামলা করা হবে।
 
তিনি বলেন,  ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে সবাইকে সচেতন হতে হবে। সবার মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যেই আমাদের এই চিরুনি অভিযান। তাই আগের সময়গুলোর চেয়ে এবার মোবাইল কোর্ট বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান সেলিম রেজা।
নগরবাসী বলছেন, নিজে সচেতন হয়েও পাশের নির্মাণাধীন ভবনের কারণে ডেঙ্গু আক্রান্তের ঝুঁকিতে আছেন তারা।
গত বছর মশক নিধনে ওষুধের কার্যকারিতা নিয়ে যে প্রশ্ন উঠেছিল, এবার সে বিষয়ে সতর্ক অবস্থানের কথা জানিয়েছেন ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবায়দুর রহমান।
 
তিনি বলেন, ওষুধ তিনটি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। সব নিশ্চিত হওয়ার পরই ওষুধ মাঠে প্রয়োগ করা হয়। মানুষ যদি একটু সচেতন হয়, তাহলে ৮০ শতাংশ মশা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। সাধারণ নাগরিকদের সচেতন করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
 
ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল বাশার মোহম্মদ তাজুল ইসলামের দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এ ক’দিনে মোট ৫৪ ওয়ার্ডে ৮৮ হাজার ৬১৬টি স্থাপনা পরিদর্শন করে মোট ৫৮২টি স্থানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। এ সময় মোট ৬৫ হাজার ২৬২ স্থাপনায় লার্ভিসাইড স্প্রে করেন মশক নিধন কর্মীরা। নিয়মিত ১২টি ও ভ্রাম্যমাণ আদালতে মোট ৮৯টি মামলায় জরিমানা আদায় করা হয় ১০ লাখ ৮৯ হাজার টাকা।
 
এদিকে রাজধানীতে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রেকর্ড সংখ্যক ১৪৩ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যার মধ্যে ১৪২ জনই রাজধানীর। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
 
এর আগে গতকাল সোমবার সর্বোচ্চ ১২৩ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। চলতি বছরে এটি একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রোগী ভর্তির রেকর্ড। প্রতিবছর বর্ষাকালেই রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বড় শহরগুলোতে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ দেখা দেয়। ২০১৯ সালে দেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়েছিল।
দেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ৩০০ মানুষ প্রাণ হারান। তবে সরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা ১৭৯। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, ওই বছর সারা দেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিল ১ লাখ ১ হাজার ৩৫৪ জন।

Published: 2021-07-28 08:21 am   |   View: 1189   |  
Copyright © 2017 , Design & Developed By maa-it.com



up-arrow