Breaking news

ভারতে লিভটুগেদার করা প্রেমিকের হাতেই খুন হন বাংলাদেশি রীনা
ভারতে লিভটুগেদার করা প্রেমিকের হাতেই খুন হন বাংলাদেশি রীনা

ভারতে লিভটুগেদার করা প্রেমিকের হাতেই খুন হন বাংলাদেশি রীনা

ভারতের মহারাষ্ট্রের নবি মুম্বাই এলাকার একটি ফ্ল্যাট খুন হওয়া লিপি সাগর শেখ ওরফে রীনা শেখ কথিত প্রেমিককে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ।

২৬ বছর বয়সী রীনা অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলী মুদ্দছার শেখের সঙ্গে করোনার সময়ে একই ফ্ল্যাটে থাকছিলেন। ২৪ বছর বয়সী আলী তাকে খুন করে ঘরে তালা দিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন। প্রায় তিন সপ্তাহ পর রীনার গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম মুম্বাই মিরর এবং টাইমস অব ইন্ডিয়া চলতি মাসের শুরুতে রীনা-হত্যার খবর দেয়।

স্থানীয় পুলিশ বলছে, ‘রীনাকে খুন করে আলী নিজের ফোন বন্ধ রাখেন। কিন্তু রীনার ফোনটি ব্যবহার করতে থাকেন। লোকেশন ট্র্যাক করে দেখা যায় তিনি বাংলাদেশে অবস্থান করছেন।’

 

পুলিশ তদন্তে জানতে পারে, আলী বাংলাদেশে পালিয়ে গেলেও তার ভাই ভারতেই অবস্থান করছেন। পরে পুলিশ তার ভাইয়ের সড়ক দুর্ঘটনার নাটক সাজিয়ে ব্যান্ডেজ পরান। এরপর হাসপাতালে নিয়ে ভিডিও-কল করান। সেখানে তিনি আলীকে হাসপাতালে আসতে অনুরোধ করেন।

সেই অনুরোধে সাড়া দিয়ে আলী হাসপাতালে গিয়েই ফেঁসে যান।

লিপির চেয়ে ২ বছরের ছোট আলীর বাংলাদেশে এক স্ত্রী আছে। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়া লিপি হসপিটালিটি ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মরত ছিলেন। ওই ফ্ল্যাটে আরও দুই বাংলাদেশি নারী বসবাস করতেন।

লকডাউনের সময় তিনজনেরই চাকরি চলে যায়। বাকি দুজন এই সময়ে বাংলাদেশে ফিরে আসলেও লিপি ভারতে থেকে যান।

ওই দুই নারী চাকরি নবায়নের জন্য মুম্বাইয়ে গিয়ে ফ্ল্যাটের দরজা বন্ধ পান। পরে পুলিশ এসে লিপির লাশ উদ্ধার করে।

ধরা পড়ার পর আলী জানিয়েছেন, লিপি প্রথম স্বামীর সঙ্গে প্রায়ই ভিডিও-কলে কথা বলতেন। এতে বাধা দিলেও কাজ হয়নি। একদিন রাগের মাথায় গলায় তোয়ালে পেঁচিয়ে হত্যা করেন।


Published: 2021-01-21 08:14:05   |   View: 1189   |  
Copyright © 2017 , Design & Developed By maa-it.com



up-arrow