Breaking news

পরকীয়ার জেরে নির্মমভাবে স্ত্রী খুন , সিআইডি কর্তৃক গ্রেফতার ঘাতক স্বামী
পরকীয়ার জেরে নির্মমভাবে স্ত্রী খুন , সিআইডি কর্তৃক গ্রেফতার ঘাতক স্বামী

পরকীয়ার জেরে নির্মমভাবে স্ত্রী খুন , সিআইডি কর্তৃক গ্রেফতার ঘাতক স্বামী

মো: মোস্তাফিজুর রহমান খান : জামালপুর পৌরসভাধীন নয়াপাড়া গ্রামের মৃত মোকছেদ আলীর মেয়ে মোসলিমা আক্তার ময়না (৩৮) তার স্বামী মোঃ রুবেল মিয়া (৪২) কর্তৃক  নিজ গৃহে দাম্পত্য কলহের জের ধরে গত ইং ১৯/০৮/২০২১ তারিখ রাত ২৩:০০ ঘটিকা থেকে ২০/০৮/২০২১ তারিখ সকাল আনুমানিক ০৭:০০ ঘটিকার মধ্যবর্তী যেকোন সময় নির্মমভাবে হত্যার শিকার হয়।

আজ বুধবার সিআইডি সদর দপ্তর আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানায় সিআডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর পিপিএম।

বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর বলেন, হত্যাকান্ডের পরপরই ঘাতক স্বামী অজ্ঞাত স্থানে আত্মগোপন করে। এরই ধারাবাহিকতায় ভিকটিমের মা মোছাঃ সুরমেলী (৬৫) কর্তৃক বিবাদী মোঃ রুবেল মিয়া (৪২) পিতা- আলম বাইদা, সাং- ঝাউগড়া, থানা- মেলান্দহ, জেলা- জামালপুর এর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগের প্রেক্ষিতে জামালপুর সদর থানার মামলা নং- ৫৭, তারিখ- ২১/০৮/২০২১ ইং ধারা- ৩০২ পেনাল কোড- ১৮৬০ রুজু করা হয়।

No description available.

তিনি বলেন, প্রায় ২ বছর পূর্বে নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর হতে রুবেল শ্বশুর বাড়ীতে ঘর জামাই হিসেবে অবস্থান করে এলাকায় রাজমিস্ত্রীর কাজ করে আসছিল। স্বামী কর্তৃক নিজ গৃহে নির্মমভাবে খুন হওয়ার ঘটনাটি এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে এবং বিভিন্ন প্রিন্ট,অনলাইন ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় বেশ গুরুত্বের সাথে প্রচারিত হয়।

এ ঘটনাটি সংঘঠিত হওয়ার পর সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর পিপিএম এর সার্বিক দিক নির্দেশনায় এলআইসি’র একটি চৌকস টিম ছায়া তদন্ত শুরু করে।ছায়া তদন্তের একপর্যায় ঢাকার ডেমরা থানাধীন ইসলামবাগ, বাশেরপুল এলাকা থেকে মামলার একমাত্র এজাহারনামীয় আসামী ঘাতক- মোঃ রুবেল মিয়া (৪২) ‘কে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী স্বীকার করে যে, অন্য একটি মেয়ের সাথে তার পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। উক্ত সম্পর্কের কথা তার স্ত্রী জানতে পারলে প্রায়শই তার সাথে ঝগড়া বিবাদে লিপ্ত হতো। এ দাম্পত্য কলহের কারণেই গত ইং ১৯/০৮/২০২১ তারিখ দিবাগত রাত অর্থ্যাৎ ২০/০৮/২০২১ তারিখ রাত ০১:৩০ টার সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে নির্মমভাবে এই হত্যাকান্ড সংঘঠিত করে। এরূপ চাঞ্চল্যকর ও পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যার ঘটনার একমাত্র এজাহারনামীয় আসামীকে দ্রততম সময়ে চিহ্নিত পূর্বক গ্রেফতার সিআইডি তথা বাংলাদেশ পুলিশের একটি উল্লেখযোগ্য অর্জন বলে মনে করেন সিআইডির এই কর্মকর্তা।


Published: 2021-09-08 09:27 am   |   View: 1174   |  
Copyright © 2017 , Design & Developed By maa-it.com



up-arrow